অল্পের জন্য বিমান দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেলেন জাতীয় দলের ফুটবলাররা

আগামীর প্রত্যাশা  স্পোর্টস ডেক্সঃ
বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফুটবলাররা অল্পের জন্য বিমান দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেলেন ওমানগামী বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফুটবলাররা।

গতকাল রাতে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের ম্যাচ খেলতে ওমান যাওয়ার উদ্দেশে রওনা দিলে এ ঘটনা ঘটে।

তবে সৌভাগ্যক্রমে কোনো রকম অঘটন ছাড়াই প্রাণে রক্ষা পান লাল-সবুজ জার্সির ফুটবলাররা।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল দলের মিডিয়া অফিসার আহসান আহমেদ অমিত জানান, রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে জাতীয় দলের ফুটবলারদের নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ওমানের উদ্দেশে আকাশে ডানা মেলে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট (বিজি-০০২১)। প্রায় এক ঘণ্টা ওড়ার পর ধুপ করে একটি শব্দ হয় এবং সঙ্গে সঙ্গে বিমানের ভেতরের বাতি বন্ধ হয়ে যায় এবং এসিও কাজ করা বন্ধ করে দেয়।

এতে বিমানের যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এ সময় ককপিট থেকে পাইলটের আওয়াজ শোনা যায়, দুঃখিত, বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিয়েছে। আমরা আবার ঢাকায় ফিরে যাচ্ছি। সবাইকে আতঙ্কিত না হতে অনুরোধ করা যাচ্ছে।

আহসান আহমেদ অমিত জানান, পাইলটের এ ঘোষণার পর পরই আতঙ্ক আরও বেড়ে যায় বিমানে। ফুটবলাররা ভয় পেয়ে যান। তারা প্রায় সবাই দোয়া-দরুদ পড়তে থাকেন। বিমানের সাধারণ যাত্রীদের কয়েকজনকে ছোটাছুটিসহ কাঁদতে দেখা যায়। এ সময় পুরো পরিস্থিতি কেমন ছিল তা ভাবলে গায়ে কাঁটা দিয়ে ওঠে।

রাত দেড়টার দিকে বিমানটি আবার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে বলে জানান আহসান অমিত।

তিনি বলেন, স্রষ্টার অশেষ কৃপায় কোনো রকম অঘটন ছাড়াই জাতীয় দলের ফুটবলাররা ঢাকায় ফিরতে পেরেছে। অবতরণের পর ফুটবলারদের উত্তরার প্লাটিনাম হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

বাফুফে সূত্রে জানা গেছে, এমন ঘটনায় জাতীয় দলের ফুটবলাররা মানসিকভাবে কিছুটা বিধ্বস্ত হলেও তারা সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। আজ (সোমবার) সকাল সাড়ে ১০টায় ভিন্ন আরেকটি ফ্লাইটে জাতীয় দলের ফুটবলারদের ওমানে যাওয়ার কথা রয়েছে।

তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফ্লাইট নম্বর দেয়া হয়নি ফুটবলারদের। তবে সাড়ে ১০টায় তাদের নিয়ে বাংলাদেশ বিমানের নতুন ফ্লাইটে ওমানের উদ্দেশে ফের উড়াল দেয়ার কথা রয়েছে। এমনটিই জানিয়েছে বিমান কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন:

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on whatsapp
Share on email
Share on print

আরও পড়ুন:

সর্বশেষ